2

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য !

প্রাচ্যের অক্সফোর্ড নামে খ্যাঁত আমাদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে একটু খোঁজাখুঁজি করেও কিছু তথ্য যা দেশের বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় আসার যোগ্য তা খুঁজে পেলাম না। তাই নিজে থেকেই কালেক্ট করে সেগুলো এখানে তুলে ধরার চেষ্টা করবো। ভার্সিটি ভর্তি পরীক্ষা, ব্যাংক এর পরীক্ষা, বিসিএস সহ যেকোনো পরীক্ষার প্রিপারেশনের জন্যেই এগুলো জেনে রাখা ভালো। 🙂

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয় কবে? – ১৯২১ সালের ১ জুলাই

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার জন্যে কোন কমিশন গঠন করা হয়েছিলো? – নাথান কমিশন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস কবে? – ১ জুলাই

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শোক সিবস – ১৫ অক্টোবর

কালো দিবস – ২৩ আগস্ট

নাথান কমিশনে কতজন সদস্য ছিল? – ১৪ জন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কতটুকু জমির উপর প্রতিষ্ঠিত? – ৬০০ একর জমির উপর

প্রতিষ্ঠার জন্য জমি কে দান করেছিলো? – স্যার নবাব সলিমুল্লাহ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাকালীন বিভাগ কতগুলো ছিল? – ১২টি

প্রতিষ্ঠাকালীন অনুষদ – ৩টি

অনুষদগুলো কি কি? – কলা, বিজ্ঞান ও আইন অনুষদ

প্রতিষ্ঠাকালীন শিক্ষক কত জন? – ৬০ জন

প্রতিষ্ঠাকালীন ছাত্র কত জন? – ৮৭৭ জন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কে প্রথম পি এইচ ডি ডিগ্রি লাভ করেন? – বিনয় ঘোষ

বঙ্গবন্ধু কোন বিভাগের ছাত্র ছিলেন? – বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের

শেখ হাসিনা কোন বিভাগের ছাত্রী ছিলেন – বাংলা বিভাগ

বর্তমানে ক্যাম্পাসের মোট আয়তন কত? – ২৫৮ একর

বর্তমানে কতগুলো বিভাগ রয়েছে এখানে? – ৭০টি

কতগুলো অনুষদ রয়েছে বর্তমানে? – ১৩টি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে রিসার্চ সেন্টার ও গবেষণা ব্যুরো আছে কয়টি? – ৩৮টি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছেলেদের হলের সংখ্যা কয়টি – ১৪ টি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মেয়েদের হলের সংখ্যা কয়টি? – ৫টি

মোট হল – ১৯টি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ভিসি –  পি জে হার্টস

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম মুসলিম ও উপমহাদেশের প্রথম ভিসি – স্যার এ এফ রহমান

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম মহিলা ডিন কে ছিলেন? – বেগম আজিজুন্নেসা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এ পর্যন্ত কতজনকে ডক্টরেট ডিগ্রী প্রদান করেন? – ৫০ জন ( ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ অনুযায়ী)

আপনার জানা মতে কোন তথ্য ভুল আছে কি? নতুন কোন তথ্য সংযুক্ত করা যৌক্তিক মনে করেন কি? তাহলে কমেন্টে জানান আমাদের !

ইমেইলে নতুন লেখাগুলো পেতে সাইন আপ করুন 🙂

আরিফুল ইসলাম পলাশ
 

বর্তমানে ঢাকার এক স্বনামধন্য কলেজে অধ্যয়নরত। লেখালেখির ঝোক ছোটবেলা থেকেই। ব্লগিং এ হাতেখড়ি সেই সপ্তম শ্রেণীতে। তখন ঠিকমতো টাইপ করতে পারতাম না, খুব কষ্ট হতো লিখতে। ধীরে ধীরে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছি। এখন কিবোর্ড চলে বুলেটের মতো। তাই ইচ্ছা আছে বাংলায় তথ্যসমৃদ্ধ ইন্টারনেট দেখার। সেই ভেবেই পিপীলিকাতে লেখা। :) ফেসবুকে আমি

চুলের সমস্যায় ভুগছেন? জেনে নিন মাথায় নতুন চুল গজানোর উপায়