4

নাক দিয়ে পানি ঝরা ও হাঁচি

Seasonal Fever বা Viral Fever বা Hay Fever ইত্যাদি নামবিশিষ্ট একটি রোগের সাথে আমরা সবাই পরিচিত। সাধারণত ঋতু বদলের সময় এই রোগের উপদ্রব দেখা দেয়। এই রোগের কোনো নির্দিষ্ট বয়সসীমা নেই, সকল বয়সের মানুষেরই এ রোগ হয়ে থাকে।

কিছু কিছু সময় হাঁচি এমনভাবে আসে যেন নাক ছিঁড়ে পড়ে যাবে

সিজনাল জ্বরের কারণে হাঁচি

Hay Fever কি?
এটা এক রকম হঠাৎ লাগা অ্যালার্জির মত। রোগীর অসম্ভব রকম হাঁচি হয়, নাক বন্ধ হয়ে যায় এবং নাক দিয়ে অনবরত পানি ঝরে। অনেক ক্ষেত্রে “হিউম্যান রাইনো” নামক ভাইরাস থেকে সংক্রামিত হয়ে থাকে।

Hay Fever হওয়ার কারণ
সাধারণত ধুলাবালি, তুলার আঁশ, ফুলের রেণু বা কোন খাবার থেকে অ্যালার্জি জনিত কারণে Hay Fever বা অনবরত হাঁচি হতে থাকে। একে অনেক সময় Seasonal Fever বা Viral Fever ও বলা হয়ে থাকে।

ঋতু পরিবর্তনের সময় এ ধরণের উপসর্গ বেশি দেখা যায়। অর্থাৎ বিশেষ ঋতুতে বিশেষ কোনো ফুল (যেমন- ঘাসফুল বা সজিনা ফুল) ফুটলে বাতাসের সঙ্গে তার রেণু ভেসে নিঃশ্বাসের সঙ্গে শরীরে প্রবেশ করে ও অ্যালার্জেন সৃষ্টি করে। সাধারণত ঘাস ফুলের রেণু থেকেই বেশি অ্যালার্জি হয়।
ধুলা বা কোনো খাবার-দাবার থেকে অ্যালার্জি হলে প্রায় সারাবছরই এ ধরণের উপসর্গগুলো দেখা দেয়। এ রোগের নামকরণে Fever শব্দটি থাকলেও মূলত এটি কোন জ্বর না। কোন জিনিস থেকে এ রোগের সূত্রপাত প্রথমে তা নির্ণয় এবং সেসব বস্তু (যেমন- ধুলাবালি, বিশেষ কোন খাবার) থেকে দূরে থাকলেই রোগ সেরে যায়।

সিজনাল জ্বরের মূল কারণ

লক্ষণ/চিহ্ন
১. চোখ মুখ ফুলাফুলা থাকে এবং চোখ লাল হয়।
২. চোখ চুলকায় এবং নাক দিয়ে পানি পড়ে।
৩. নাকের ভিতর শিরশির করে এবং ঘনঘন হাঁচি হয়।
৪. গলা খুসখুস করা এবং কাশি হওয়া।
৫. শরীরে জ্বর থাকে না বা মৃদু জ্বর থাকে।
৭. শরীর ব্যথা করা।

সিজনাল জ্বরের লক্ষণ

সিজনাল জ্বরের লক্ষণ

চিকিৎসা/ব্যবস্থাপনা
১. ঠান্ডা বাতাসে চলাফেরা না করাই ভালো।
২. হাঁচি ও নাকের পানি বন্ধের জন্য,
Tab. Anista; মাত্রা – ১টি করে দিনে ২-৩ বার
Syp. Anista; মাত্রা – ১-২ চামচ দিনে ৩ বার (খাবার পর) ৩-৪ দিন
Tab. Phenergan 10mg.; মাত্রা – ১টি করে দিনে ২-৩ বার
Syp. Phenergan; মাত্রা – ১-২ চামচ দিনে ৩ বার
Tab. Avil 25mg.; মাত্রা – ১টি করে দিনে ৩ বার
Tab. Avil 75mg.; মাত্রা – ১টি করে দিনে ১ বার
Syp. Avil; মাত্রা – ২-৩ চামচ দিনে ৩ বার
Tab. Mephadis; মাত্রা – ১টি করে দিনে ২-৩ বার
Tab. No-Sedan; মাত্রা – ১টি করে দিনে ১-২ বার (৫ বছরের নিচে প্রযোজ্য নয়)
যেকোন একটি সেবন করলেই হবে। মূলতঃ অ্যান্টি-ভাইরাল ওষুধ সেবন করলেই হবে।

আগে থেকেই নাকের অসুবিধা থাকলে বা নাক বেশি বন্ধ হলে,
Spray Antazol; মাত্রা –  শিশুদের জন্য ০.০৫% এবং বয়স্কদের জন্য ০.১% নাকের ভিতর দিন ২-৩ বার

শরীরে দূর্বলতা থাকলে ভিটামিন বি-কমপ্লেক্স (B-Complex) জাতীয় ঔষধ

অ্যালার্জির কারণে সৃষ্ট সমস্যা

Tab. B-50 Forte; মাত্রা – ১টি করে দিনে ৩ বার (খাবার পর) ১৫ দিন
Syp. Vitamin B-Complex; মাত্রা – ১-২ চামচ দিন ৩ বার

রক্তশুন্যতা থাকলে রক্তবর্ধক ঔষধ
Syp. Ferglucon

মাথা ব্যথা হলে ও শরীর ব্যথা হলে প্যারাসিটামল (Paracetamol) জাতীয় ঔষধ
Tab. Servigesic; মাত্রা – ১টি করে দিনে ২ বার
Tab. Ace; মাত্রা – ১টি করে দিনে ৩ বার
Tab. Napa Xtra; মাত্রা – ১টি করে দিনে ৩ বার (খাবারের পর)
Syp. Napa; মাত্রা – ৩ মাস থেকে ১ বছর বয়স ১/২ থেকে ১ চামচ চার ঘন্টা পরপর এবং ১-৬ বছর ১-২ চামচ ৪ ঘন্টা পরপর

হার্বাল চিকিৎসা
১. আদার রস, বাসক পাতার রস, তুলসী পাতার রস মধু দিয়ে খেলে উপকার হয়।
২. গরম আদার চা খুবই উপকারী।
৩. ভিটামিন-সি যুক্ত ফল খাওয়া।
৪. কালোজিরা পুটলিতে বেধে নাক দিয়ে ঘ্রাণ নিলে সর্দি ও হাঁচি বন্ধ হয়।

উপদেশঃ খাদ্য ও পথ্য
১. গরম ও উষ্ণ তরল খাবার খাওয়া উচিত।
২. নাকের ভিতর পরিষ্কার রাখ উচিত।
৩. যার জন্য এ অ্যালার্জি হয় তা থেকে দূরে থাকা উচিত।

ইমেইলে নতুন লেখাগুলো পেতে সাইন আপ করুন 🙂

আসাদুজ্জামান নূর অন্তর
 

“আসাদুজ্জামান নূর” শব্দ দু’টোর আভিধানিক অর্থ দাঁড়ায় “কালের সিংহ মানে সময়ের বীর, আলো/ আলোপ্রাপ্ত/ আলোকিত বা আল্লাহর পক্ষ থেকে হেদায়াতের আলোয় আলোকিত”… জানি না আমি তেমন কিনা.. আশায় আছি, এক প্রানবন্ত ভবিষ্যতের.. ফেসবুকে, টুইটারে, গুগল প্লাসে আমি

চুলের সমস্যায় ভুগছেন? জেনে নিন মাথায় নতুন চুল গজানোর উপায়