5

সম্পূর্ণ ফেইসবুক ফটো অ্যালবাম ডাউনলোড করার উপায়…

ফেইসবুক থেকে ছবি ডাউনলোড

ফেইসবুক এ যাবৎকালের সেরা সামাজিক যোগাযোগ ওয়েবসাইট। সেরা সামাজিক যোগাযোগ সাইট হওয়ার পাশাপাশি সবচেয়ে বেশি ছবি হোস্ট করার কৃতিত্বটাও এদের। প্রতি দিন হাজার হাজার ছবি আপলোড হচ্ছে ফেইসবুকে। আপনি ফেসবুক ইউজার হয়ে থাকলে আপনিও নিশ্চয়ই বেশ অনেক ছবি আপলোড করেছেন। ধরা যাক, আপনি কিছু ছবি ফেইসবুকে আপলোড করেছেন এবং সেই ছবিগুলোর যে ব্যাকআপ আপনার পিসিতে ছিলো কোন কারণে সেটা ডিলেট হয়ে গেছে, সে মূহুর্তে কি করবেন? ছবির সংখ্যা যদি তুলনামূলক বেশি হয় তাহলে কেল্লাফতে। ক্লিক করে করে ডাউনলোড করা নিশ্চয়ই বেশ ভোগান্তির। কেমন হয় যদি মাত্র কয়েকটা ক্লিকে সবগুলো ছবি অটো ডাউনলোড হয়? হুম এই পোস্টে সেই প্রসেসটাই দেখানোর চেষ্টা করা হবে।

প্রথম ধাপঃ

Fluschipranie এড-অন্সটি ডাউনলোড ও ইন্সটল করতে হবে।

ফায়ারফক্স ব্যবহারকারীরা পাবেন এখানে
ক্রোম ব্যবহারকারীরা পাবেন এখানে
অপেরা ব্যবহারকারীরা পাবেন এখানে

দ্বিতীয় ধাপঃ

ব্রাউজারটি রিস্টার্ট করুন।

তৃতীয় ধাপঃ

আপনি যে ফটো অ্যালবামটি ডাউনলোড করতে চাচ্ছেন সেই অ্যালবামের নামের উপর রাইট ক্লিক করুন এবং ড্রপ-ডাউন মেন্যু থেকে “fluschipranie’s download” নির্বাচন করুন। অনেকটা নিচের ছবির মতোঃ

ফেসবুক ছবি ডাউনলোডচতুর্থ ধাপঃ

নতুন একটী উইন্ডো ওপেন  হবে সেখানে ডাউনলোডকৃত ছবিগুলোর নাম কীরূপ হবে সেটা জানতে চাইবে। নিজের ইচ্ছেমতো নাম দিতে চাইলে বক্সের মধ্যে কাঙ্ক্ষিত নাম লিখুন। আর যদি চান যে ফেইসবুকে যেভাবে নামকরণ করা আছে সেভাবেই ডাউনলোড করবেন ছবিগুলো তাহলে “Facebook Prefix” এর পাশের বক্সে টিক দিয়ে “Ok” প্রেস করুন নিচের মতো করে।
পঞ্চম ধাপঃ

নতুন একটি উইন্ডো ওপেন হবে এবং আপনাকে একটি ফোল্ডার নির্বাচন করতে বলবে যেখানে আপনি ফেইসবুকের ছবিগুলো ডাউনলোড করতে চাচ্ছেন। কাঙ্ক্ষিত ফোল্ডার দেখিয়ে দিন এবং “Select Folder” বাটনে ক্লিক করুন।
অতঃপর আপনার কাজ শেষ, এবার নতুন একটি ট্যাব ওপেন হবে আপনার ব্রাউজারে এবং ছবিগুলোর ডাউনলোড হতে থাকবে। অনেকটা নিচের ছবির মতো করেঃ

ফেসবুক ছবি

আশা করি সকলের উপকারে এসেছে। কেমন লাগলো মতামত এ জানালে ভালো হয়। 🙂

ইমেইলে নতুন লেখাগুলো পেতে সাইন আপ করুন 🙂

আরিফুল ইসলাম পলাশ
 

বর্তমানে ঢাকার এক স্বনামধন্য কলেজে অধ্যয়নরত। লেখালেখির ঝোক ছোটবেলা থেকেই। ব্লগিং এ হাতেখড়ি সেই সপ্তম শ্রেণীতে। তখন ঠিকমতো টাইপ করতে পারতাম না, খুব কষ্ট হতো লিখতে। ধীরে ধীরে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছি। এখন কিবোর্ড চলে বুলেটের মতো। তাই ইচ্ছা আছে বাংলায় তথ্যসমৃদ্ধ ইন্টারনেট দেখার। সেই ভেবেই পিপীলিকাতে লেখা। :) ফেসবুকে আমি