1

সহজ উপায়ে পাপড়ি চাট কিভাবে তৈরি করা যায়

আমরা কিছু কিছু রেস্তোরাঁয় “পাপড়ি চাট” নামের এক প্রকারের সুস্বাদু খাবার দেখতে পাই। পাপড়ি চাট প্রধানত পাকিস্তানি ও উত্তর-ভারতীও একটি খাবার বা ফাস্টফুড। অনেকে এই সুস্বাদু খাবার খাওয়ার জন্য মাঝে মাঝেই রেস্তোরাঁর শরণাপন্ন হন। কিন্তু আপনি ইচ্ছা করলেই বাসাতেই এই খাবারটি প্রস্তুত করতে পারেন এবং তা খুব সহজেই। আমি রান্না-বান্না একদমই পারি না, আমার তেমন কোন ধারণাও নেই রান্না-বান্না সম্পর্কে; আর এইসব বিষয়ে আমি অনেকটাই অলসতা অনুভব করি। কিন্তু পাপড়ি চাট এতো সহজেই বানানো যায় যে আমি মাঝে মাঝেই নিজে থেকেই এই খাবারটি বানিয়ে ফেলি। খাবারটি সুস্বাদু এবং তৈরি করা সহজ বলেই আমি খাবারটি তৈরি করার সহজ উপায়টি তুলে ধরছি। আর নিচের যে ছবিটি দেয়া আছে সেটা ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করা, সুতরাং বলে রাখা ভালো যে যেই পাপড়ি চাট আপনি বানাবেন সেটা দেখতে হুবহু এইরকম হবে না।

dahi papdi chaat

প্রয়োজনীয় উপকরণঃ 

১।। টক দই, ২।। টমেটো কেচাপ, ৩।। বিট লবণ, ৪।। ঝুরি-ভাজা, ৫।। চিনি, ৬।। সিদ্ধ আলু

প্রণালীঃ

১।। প্রথমে একটি বাটিতে ৫-৬ টেবিল চামচ টক দই নিন। (আপনার প্রয়োজনে এর চেয়ে বেশি বা কমও নিতে পারেন)

২।। সেখানে আধা-টেবিল চামচ টমেটো কেচাপ ঢালুন।

৩।। এবার ১ চা-চামচ চিনি ঢালুন।

৪।। এখন ১-২ চিমটি বীট লবণ দিন।

৫।। প্রয়োজনমত ঝুরি-ভাজা ঢালুন।

৬।। সিদ্ধ করা আলু ছোট ছোট করে কেটে মিশ্রণটিতে ঢেলে দিন।

সাবধানতাঃ

১।। খেয়াল রাখবেন ঝুরি-ভাজার পরিমাণ যেন টক দই এর তুলনায় বেশি না হয়, টক দই এর পরিমাণ ঝুরি-ভাজার তুলনায় লক্ষণীয় মাত্রায় বেশী নেয়া ভাল; যাতে ঝুরি-ভাজাগুলো অনেকটা ভেজা ভেজা থাকে।

২।। পাপড়ি চাট বানানো হয়ে গেলে সাথে সাথেই তা খেয়ে ফেলার চেষ্টা করবেন। বানানো অবস্থায় রেখে দিলে স্বাদ নষ্ট হয়ে যায়।

বি.দ্র. 

১।। বাসায় আলু না থাকলে বা আলু সিদ্ধ করা বা কাটা ঝামেলার মনে হলে, আপনি আলু না দিয়েও খেতে পারেন।

২।। ইচ্ছা করলে আপনার স্বাদমত অন্যান্য উপকরণও এতে দিতে পারেন। যেমন-শসা বা অন্য কোনো সবজি কিংবা কোনো মচমচে(ক্রিস্পি)খাবার।

এইভাবেই অতি সহজেই আপনি আপনার বাড়ীতে কয়েক মিনিটেই “পাপড়ি চাট” তৈরি করতে পারেন। কোনো সমস্যা বা জিজ্ঞাসা থাকলে কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন। আশা করি এই উপায়ে বানানো পাপড়ি চাট আপনি উপভোগ করবেন। 🙂

ইমেইলে নতুন লেখাগুলো পেতে সাইন আপ করুন 🙂

সৌমিক
 

সব কিছুর আগে একজন মানুষ। সবসময় তাই-ই করি যা করতে ভালোবাসি। মনুষ্যত্ব ধর্মের অনুসারী। জীবন থেকে বিস্মিত হবার মত কিছু পাবার অপেক্ষায়.........